সাতক্ষীরায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছাত্রলীগের ২ কর্মী নিহত

প্রকাশিত: ২:১৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩০, ২০১৯

নয়াদেশ রিপোর্ট।।  সাতক্ষীরায় পুলিশের সাথে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দ্বীপ আজাদ ও সাইফুল ইসলাম নামে ছাত্রলীগের দুই কর্মী নিহত হয়েছেন। তবে পুলিশের দাবি, নিহতরা ছিনতাই, মাদক, হত্যাসহ বিভিন্ন মামলার সাথে জড়িত এবং এসব মামলার আসামী। ঘটনাস্থল থেকে দুইটি বিদেশি পিস্তল ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।
শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) দিনগত ভোর রাতে সাতক্ষীরা বাইপাস সড়কের বকচরা মোড় এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।
নিহত দ্বীপ আজাদ সাতক্ষীরা শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার মইনুল ইসলামের ছেলে। অপরজন, নিহত সাইফুল ইসলাম কালিগঞ্জের সাইহাটি গ্রামের সবুর সরদারের ছেলে।
পুলিশ জানায়, দ্বীপ সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাদিকুর রহমানের দেহরক্ষী হিসেবে তার সাথে থাকত। সে মুন্সিপাড়া এলাকার সোহাগ হত্যা মামলার আসামি। অন্যদিকে সাইফুল স্থানীয়ভাবে অস্ত্রধারী ক্যাডার হিসেবে পরিচিত।
সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার (এসপি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, দ্বীপ আজাদ ও সাইফুল ইসলাম চিহ্নিত অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। তারা দু’জনই কালিগঞ্জের এক ব্যক্তির ২৬ লাখ টাকা ছিনতাই, খুনসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাÐের সাথে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে থানায় হত্যাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।
সদর থানা পুলিশ জানায়, জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) এবং কালিগঞ্জ থানা পুলিশ দ্বীপ ও সাইফুলকে গ্রেফতারের পর তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শুক্রবার দিনগত রাতে অস্ত্র উদ্ধারে বকচরা মোড় এলাকায় যায়। পুলিশ আসামিদের নিয়ে ওই এলাকায় পৌঁছালে তাদের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়লে দ্বীপ ও সাইফুল গুলিবিদ্ধ হয়। আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে তারা মারা যায়।