মানুষ হত্যা করে সরকার উৎখাত করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১১:৩৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৩, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবদেক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জ্বালাও-পোড়াও আর মানুষ হত্যা করে সরকার উৎখাত করতে পারবে না বিএনপি। তবুও তারা আন্দোলনের নামে ৭১ সালের পাকিস্তানি বাহিনীর কায়দায় দেশের সাধারণ জনগণের জানমালের ক্ষতি করছে।

আজ বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) নিজ সরকারি বাসভবন গণভবনে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) নবনির্বাচিত কমিটির সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভোর সাড়ে ৪টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় গ্যাসচালিত মেশিন দিয়ে প্রায় ২০ ফুট রেললাইন কেটে ফেলা হয়। এতে নেত্রকোনা থেকে ছেড়ে আসা মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেসের আটটি বগি গাজীপুরে লাইনচ্যুত হয়। একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। বিএনপির সন্ত্রাসীরা এর আগেও একাধিকবার একই কাজ করেছে। তার মানে এটি ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত করে মানুষকে হত্যার চেষ্টা। তারা জনগণকে হত্যা করে সরকার উৎখাত করতে চায়। মানুষ হত্যা করে তারা আন্দোলন থেকে কী অর্জন করতে পারে? বিএনপি অগ্নিসংযোগ অব্যাহত রেখেছে। প্রতিদিন হরতাল ও অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করছে। ধর্মঘট ও অবরোধের অর্থ কিছু বাস ও ট্রাক পুড়িয়ে দেওয়া।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘যারা রেললাইন তুলে ফেলে বা মানুষকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার পরিকল্পনা করে, তাদের মধ্যে মানবিকতা বোধ বলতে কিছু নেই। সুতরাং জনগণকেই এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। তাদের জন্য কোনো ক্ষমা নেই। তাদের শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে। আমি জনগণকেও তাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে বলব।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা যখন বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার কবলে পড়েছি, তখন তারা (বিএনপি) যদি এ ধরনের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে তাহলে দেশের ভবিষ্যৎ কী হবে? তাদের জনগণের কাছে যাওয়া উচিত। জনগণ যাদের ভোট দেবে তারাই ক্ষমতায় আসবে। আমরা ক্ষমতায় টিকে থাকার কোনো চেষ্টা করছি না। আমরা যতদিন ক্ষমতায় আছি ততদিন বাংলাদেশের উন্নয়ন করছি। আজ বাংলাদেশ আমূল বদলে গেছে।’

মাহবুবুল আলমকে সভাপতি করে ২০২৩ সালের আগস্টে ২০২৩-২৫ মেয়াদের জন্য এফবিসিসিআইয়ের নতুন কমিটি নির্বাচিত করা হয়। নবনির্বাচিত সহসভাপতি আমিন হেলালী, খায়রুল হুদা চপল, মোহাম্মদ আনোয়ার সাদাত সরকার ও যশোদা জীবন দেবনাথ এসময় উপস্থিত ছিলেন।