কেটে রাখা রেললাইনে দুর্ঘটনা: এক যাত্রীর মৃত্যু

প্রকাশিত: ১২:৫৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৩, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুরের ভাওয়ালে মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের ৭টি বগি লাইনচ্যুতের ঘটনায় এক যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় রেলের চালকসহ অন্তত ১০ জন যাত্রী আহত হয়েছেন।অবরোধকারীরা রেললাইন কেটে ফেলায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেছে রেলওয়ে।

বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) ভোররাত চারটার দিকে রাজেন্দ্রপুর স্টেশন থেকে ছেড়ে আসা মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেন এ দুর্ঘটনায় পড়ে। এ ঘটনায় ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটের ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির নাম আসলাম হোসেন (৩৫)। তিনি ময়মনসিংহের গফরগাঁও থানার রওহা গ্রামের বাসিন্দা। এছাড়া আরও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। যার মধ্যে ট্রেনের লোকোমাস্টার এমদাদুল হক, সহকারী লোকামোস্টার সজিব মিয়া গুরুতর আহত হয়েছেন।

ঘটনার পরপরই গাজীপুর জেলা প্রশাসক, শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), গাজীপুর জেলা পুলিশের কালিয়াকৈর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আজমীর হোসেন, র‌্যাব-১ এর পোড়াবাড়ি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর ইয়াসির আরাফাত হোসেন, গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম বলেন, নাশকতার উদ্দেশ্যে অবরোধকারীরা রাতে প্রায় ২০ ফুট রেললাইন কেটে রেখেছিল। এ কারণেই ঘটেছে এই দুর্ঘটনা।

এ ঘটনার তদন্তে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবিরকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই তদন্ত কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে বলেও জানান জেলা প্রশাসক।

এর আগে জয়দেবপুর রেলওয়ে স্টেশনের মাস্টার হানিফ আলী জানান, বুধবার ভোররাত চারটা থেকে সোয়া চারটার দিকে ঢাকাগামী মোহলগঞ্জ এক্সপ্রেক্স ট্রেনটি রাজেন্দ্রপুর স্টেশন ছেড়ে যায়। কিছুদুর যাওয়ার পরপরই এর ইঞ্জিনসহ ৭টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় আহত বেশ কয়েকজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা শুনেছি দুর্বৃত্তরা রেললাইনের কিছু অংশ কেটে নিয়ে যাওয়ায় ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে। এরপর থেকে ঢাকা-ময়মনসিংহ রুট ব্যবহারকারী সব ট্রেনের চলাচল বন্ধ রয়েছে।’

ঢাকা থেকে উদ্ধারকারী দল পৌঁছানোর পর সকাল ৮টার দিকে উদ্ধার কাজ শুরু হয়েছে বলেও জানান তিনি।