ইসির দ্বিতীয় দিনের শুনানি: প্রার্থীতা ফিরে পেলেন ৫১ জন

প্রকাশিত: ১১:১৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৩, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে প্রার্থীদের আপিলের শুনানির দ্বিতীয় দিনে ১শ’ জনের আবেদন নিষ্পত্তি করা হয়েছে। ৫১ জন প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন, ৪১ জনের ক্ষেত্রে বাতিলের সিদ্ধান্ত বহাল থাকছে এবং ৮ জনের প্রার্থীতার ব্যাপারে পরে আদেশ দেবে কমিশন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল শুনানির দ্বিতীয় দিন ছিল সোমবার। আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে এদিন ভিড় করেন মনোনয়ন যাচাই-বাছাইয়ে বাতিল হওয়া প্রার্থীরা। আইনজীবী নিয়ে তারা স্বশরীরে উপস্থিত হন কমিশন ভবনে।

ঋণ খেলাপির দায়ে মনোয়ন বাতিল হয়েছে যশোর ৪ আসনের নৌকার প্রার্থী এনামুল হক বাবুল, বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নানের মনোনয়ন। মোট ৫২ জনের আপিল না মঞ্জুর হয়েছে। তবে দ্বৈত নাগরিকের অভিযোগ ওঠায় ফরিদপুর ৩ আসনের নৌকার প্রার্থী শামীম হকের প্রার্থীতার বিষয়ে সিদ্ধান্ত মুলতবি রেখেছে ইসি। আসন নম্বর ২৯৮, খাগড়াছড়ি আসনে নিজের মনোনয়নের বৈধতা ফিরে পেতে সমর্থনকারী ভোটারদের নিয়ে আসেন স্বতন্ত্র প্রার্থী সমীর দত্ত চাকমা। নির্বাচন সম্পর্কে তেমন জানা না থাকালেও প্রার্থীর জন্য এতো দূর ছুটে এসেছেন তারা। তবে শেষ পর্যন্ত এই প্রার্থীর আপিল নামঞ্জুর করে কমিশন।

দ্বিতীয় দিনে ১শ’ জনের আপিল নিষ্পত্তি হয়। প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্য কমিশনারদের সামনে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন সংশ্লিষ্টরা। শুনানির দ্বিতীয় দিনে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন নোয়াখালী ৩ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য মামুনুর রশিদ কিরণ, সিলেট ২ আসনে গণফোরামের প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান এবং রাজশাহী ১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহী।

নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ বজায় থাকলে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী আপিলের শুনানি শেষে বৈধ ঘোষিত প্রার্থীরা। আবেদন না-মঞ্জুর হওয়া প্রার্থীরা জানালেন, উচ্চ আদালতে যাবেন তারা। আপিলের শুনানি চলবে ১৫ই ডিসেম্বর পর্যন্ত।

আর যেসব প্রার্থী যথাযথ তথ্য উপাত্ত আপিলে উপস্থাপন করে মনোয়ন ফিরে পান সেসব প্রার্থী ও তার সমর্থকরা ছিলেন বেশ উচ্ছাসিত।

বুধবার দুটি আবেদন স্থগিত করেছে কমিশন। দুই নৌকার প্রার্থী শামীম হক ও শাম্মী আখতারের দ্বৈত নাগরিক যাচাইয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ে চিঠি দিয়েছে ইসি।